রসায়নেও নোবেল পেলেন তিন বিজ্ঞানী।

মলিকিউলার মেশিন বা ন্যানোমেশিন উদ্ভাবনের গবেষণার স্বীকৃতি হিসেবে তিন বিজ্ঞানী এবার রসায়নের নোবেল জিতে নিয়েছেন।

রয়্যাল সুইডিশ অ্যাকাডেমি অফ সায়েন্স বুধবার এ পুরস্কারের জন্য ফ্রান্সের জ্যঁ পিয়েরে সোভাজ, যুক্তরাজ্যের ফ্রেজার স্টুডার্ট এবং নেদারল্যান্ডসের বার্নার্ড এল. ফেরিঙ্গার নাম ঘোষণা করে।
তাদের বিশ্বের ক্ষুদ্রতম যন্ত্রের উদ্ভাবক হিসেবে বর্ণনা করে নোবেল কমিটির সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, তাদের গবেষণা রসায়ন শাস্ত্রকে নতুন মাত্রায় পৌঁছে দিয়েছে।

রীতি অনুযায়ী আগামী ১০ ডিসেম্বর স্টকহোমে তিন বিজ্ঞানীর হাতে পুরস্কার তুলে দেওয়া হবে। পুরস্কারের ৮০ লাখ সুইডিশ ক্রোনার তারা ভাগ করে নেবেন।
জীবন্ত কোষ কী করে তার ক্ষতিগ্রস্ত ডিএনএ মেরামত করে, আর কেমন করে জিনে থাকা তথ্যের সুরক্ষা দেওয়া হয়- সেই প্রশ্নের ব্যাখ্যা দিয়ে গতবছর রসায়নের নোবেল পান সুইডেনের টোমাস লিন্ডল, যুক্তরাষ্ট্রের পল মডরিচ ও তুরস্কের আজিজ সানজার।

সুইডিশ বিজ্ঞানী আলফ্রেড নোবেলের শেষ ইচ্ছা অনুসারে গবেষণা, উদ্ভাবন ও মানবতার কল্যাণে অবদানের জন্য প্রতি বছর চিকিৎসা, পদার্থ বিজ্ঞান, রসায়ন, সাহিত্য, শান্তি ও অর্থনীতিতে নোবেল পুরস্কার দেয়া হয়।

শুক্রবার শান্তি এবং ১০ অক্টোবর সোমবার অর্থনীতিতে এবারের নোবেল বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হবে। আর সাহিত্য পুরস্কার কবে ঘোষণা করা হবে, সে তারিখ পরে জানানো হবে বলে নোবেল পুরস্কারের ওয়েবসাইটে জানানো হয়েছে।


Previous Post
Next Post