পিক্সেল ফোন দিয়ে অ্যাপলকে ও স্যামসাং কে টেক্কা দেবে গুগল।

অ্যাপলকে ঠেকাতে নতুন স্মার্টফোন আনল গুগল। নেক্সাস ব্র্যান্ড বাদ দিয়ে আনল নতুন ব্র্যান্ড। গুগল ও এপল এর মধ্যে যে ঠান্ডা যুদ্ধ চলছে তা এতেই নজরে আসছে।
মোটামুটি প্রায় এপলের কাছাকাছি মোবাইলই বাজারে ছাড়ছে গুগল। আর এতে থাকছে গুগুলের বিল্ট ইন সকল সুবিধা।

যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে ৩২ জিবি মডেলের গুগল পিক্সেলের দাম হবে ৬৪৯ মার্কিন ডলার আর ১২৮ জিবি মডেলের দাম হবে ৭৪৯ মার্কিন ডলার। ৩২ জিবির পিক্সেল এক্সএলের দাম হবে ৭৬৯ মার্কিন ডলার ও ১২৮ জিবি মডেলের দাম হবে ৮৬৯ মার্কিন ডলার।

গুগল কর্তৃপক্ষের ভাষ্য, পিক্সেল ও পিক্সেল এক্সএল গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট বিল্ট-ইন সুবিধার প্রথম ফোন। পিক্সেল ফোনটিতে রয়েছে ৫ ইঞ্চি মাপের ফুল এইচডি অ্যামোলেড ডিসপ্লে ও পিক্সেল এক্সএলে রয়েছে সাড়ে পাঁচ ইঞ্চি মাপের কোয়াড এইচডি অ্যামোলেড ডিসপ্লে। দুটি মডেলেই কর্নিং গরিলা গ্লাস ৪ সুরক্ষা রয়েছে।
দুটি মডেলে অ্যালুমিনিয়ামের কাঠামো ও পেছনে গ্লাস যুক্ত করা হয়েছে।

কোয়ালকমের স্ন্যাপড্রাগন ৮২১ প্রসেসর যুক্ত স্মার্টফোনে চার জিবি র্যাম আছে এতে। স্মার্টফোনটির পেছনে সনির আইএমএক্স সেন্সরযুক্ত ১২ দশমিক ৩ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা ও সামনে ৮ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা রয়েছে।
অ্যান্ড্রয়েড নোগাট অপারেটিং সিস্টেমচালিত ফোনে ইউএসবি টাইপ সি ও ৩ দশমিক ৫ মিমি অডিও জ্যাক থাকবে। যুক্তরাষ্ট্রের ওই অনুষ্ঠানে স্মার্টফোন ছাড়াও ডেড্রিম ভিআর হেডসেট, ক্রোমক্রাস্ট আলট্রা, গুগল ওয়াই-ফাইয়ের ঘোষণা দিয়েছে গুগল কর্তৃপক্ষ।

অনুষ্ঠানে গুগলের প্রধান নির্বাহী সুন্দর পিচাই গুগল অ্যাসিস্ট্যান্টের মতো কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা মেশিন লার্নিং তৈরিরে গুগলের প্রচেষ্টার কথা তুলে ধরেন। গুগল কর্তৃপক্ষ প্রতিদ্বন্দ্বী অ্যাপলকে টেক্কা দিতে নতুন একটি হার্ডওয়্যার বিভাগ খুলেছে।

বাজার বিশ্লেষকেরা বলছেন, অ্যাপলের সঙ্গে পাল্লা দিতে গুগল অ্যান্ড্রয়েড ফোন আনায় তীব্র প্রতিযোগিতার মুখে পড়বে স্যামসাং।

Previous
Next Post »