শেষ ১০ ওভারের ভোগান্তি বাংলাদেশ দলে।

আফগানিস্তান সিরিজে বাংলাদেশকে ভুগিয়েছে স্লগ ওভারের ব্যাটিং। শেষের দিকে ওঠেনি ঝড়, যেটির প্রভাব পড়েছে দলের সংগ্রহে। ইংল্যান্ড সিরিজে এই সমস্যা কাটিয়ে উঠতে চায় বাংলাদেশ দল।

আফগানিস্তান সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে শেষ ১০ ওভারে বাংলাদেশ তুলেছিল ৬৯ রান। পরের দুটিতে ৫৪ ও ৬৪ রান। শেষ দিকে দ্রুত রান তোলার বড় দায়িত্ব যার, সেই সাব্বির রহমান প্রথম দুই ম্যাচে ছিলেন বিবর্ণ।

শেষ ওয়ানডেতে তিন নম্বরে নেমে রান পেয়েছেন সাব্বির। শেষে দিকে বলের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে রান তুলেছেন মাহমুদউল্লাহ। কিন্তু সহায়তা পাননি বাকিদের থেকে। মাশরাফি নিজে শেষ দিকে গুরুত্বপূর্ণ কিছু রান করেছেন ক্যারিয়ারে অনেকবার। আফগানিস্তান সিরিজে তিনিও ছিলেন নিষ্প্রভ।

মাশরাফি: আগের সিরিজটায় ভালো হয়নি শেষের ব্যাটিং
“গত সিরিজে আমাদের বাজে গেছে এই জায়গাটায়। প্রথম ম্যাচে সেট ব্যাটসম্যানরা আউট না হয়ে গেলে অন্যরকম হতে পারত। দ্বিতীয় ম্যাচে পুরো ব্যাটিংই ভেঙে পড়েছে। শেষ ম্যাচে মোটামুটি ভালোই করেছে। রিয়াদ ভালোভাবে শেষ করেছে। তবে রিয়াদকে আবার আমরা ভালোভাবে সাপোর্ট দিতে পারিনি।

আফগানিস্তান সিরিজে কোনো রকমে পার পাওয়া গেলেও ইংল্যান্ড সিরিজে খেসারত দিতে হতে পারে অনেক বেশি। দলও তাই বিয়য়টি নিয়ে ভাবছে গুরুত্ব দিয়ে।

শেষের দিকে ৫-১০ রানও অনেক সময় বড় ব্যাপার হয়ে দাঁড়ায়। আমরা অবশ্যই ভাবছি। এই ধরনের চাপের ম্যাচে সব জায়গাই ঠিক করতে হবে। যে জায়গায় ভুল ছিল, সে সব ঠিক করতে হবে। যে সব ঠিক করেছি সেসব ধরে রাখতে হবে।