মেহেদী রাঙা জমকালো ডিজাইন । ইদ স্পেশাল ।

মেহেদী রাঙা হাত ছাড়া কি ইদ জমে ? না । ইদের জন্য মেহেদীর জমকালো সব স্পেশাল ডিজাইন নিয়ে আজকের পোষ্ট । ছেলে বুড়ো , নর-নারী , তরুন -তরুনী নির্বীশেষে সবাই মেহেদী হাতে নিজেকে সাজিয়ে তুলতে চেষ্টা করে । আজ আমরা চেষ্টা করবো সবচাইতে আনকমন কিছু মেহেদীর ডিজাইন ।

 

আরও দেখুনঃ
  1. নজরকাড়া আনকমন কিছু মেহেদী ডিজাইন । [স্পেশাল] 
  2. Pakistani Girls Creative Tattoo Designs Hot Photos
ইদ মানেই স্পেশাল আর এটাকে আরও স্পেশাল করে তুলবে ক্রিয়েটিভ কিছু আর্ট যা আপনার ব্যাক্তিত্তকে জাগিয়ে তুলবে । ইন্টারনেটে বা মেহেদী ডিজাইনের বইতে সবারই কিছু না কিছু ডিজাইন পছন্দ হবে কিন্তু তা যদি হয় কমন তবে কি আর নতুন কিছু হল ? তাই চেষ্টা করেছি একেবারেই গৎবাঁধা গর্ত থেকে বেরিয়ে নতুন কিছু আপনাদের উপস্থাপন করতে । আর চাইলে কয়েকটি থেকে মিশিয়ে বাছাই করেও একটা স্বতন্ত্র রুপ দিতে পারেন ।

ভাল রঙ পেতে করনীয়ঃ 

মেহেদীর রং গাঢ় করতে হলে মেহেদী লাগানোর আগে হাত ভালো করে সাবান দিয়ে ধুয়ে শুকিয়ে নেবেন তারপর মেহেদী লাগাবেন । স্বাভাবিক নিয়মে মেহেদী শুকোতে দিন,যখন নিজে থেকে ঝরে পড়বে তখন উঠিয়ে ফেলুন l একটা পরিস্কার কাপড় দিয়ে হাতটা মুছে নিয়ে সর্ষের তেল মাখুন এবার একটা তাওয়া গরম করে তাতে লবঙ্গ দিয়ে হাতে ওই ধূয়াটা ৫ মিনিট লাগতে দিন তাহলে দেখবেন মেহেদীর রং টা অনেক সুন্দর হয়েছে l আর আপনি আরো বেশি রং চাইলে,বাটা মেহেদীর সাথে কফি পাউডার বা চিনি-লেবুর রস মিশিয়ে ঘন্টা খানেক রেখে লাগাতে পারেন । চিনি-লেবুর রস মিশালে তা অবস্যই স্টিলের বাটিতে মিশাবেন আর চিনি দিয়ে তার উপর লেবুর রসটা দিবেন । কফি বা চিনি-লেবুর রস মিশিয়ে আপনি কিন্তু একই ভাবে রঙের জন্য চুলেও লাগাতে পারবেন । মেহেদী লাগালে চেষ্টা করবেন রাতে লাগানোর এতে করে রং গাঢ় হবার সময় বেশি পাওয়া যায় । মেহেদী লাগানোর পর অন্তত ১২ ঘন্টা পানি/সাবান লাগাবেন না এতে রং সুন্দর হবে।

হাতের আঁকার জন্যঃ































পায়ে আঁকার জন্য মেহেদী ডিজাইনঃ 














কেমন লাগলো আজকের ইদ উপলক্ষে স্পেশাল মেহেদী ডিজাইন । কমেন্ট করে জানাবেন ।
ভাল থাকবেন । প্রিয়োজন কে ভাল রাখবেন । আর সবার ইদ সুন্দর কাটুক । ইদের ভ্রমন সুন্দর হোক । ইদ মোবারক ।

Previous Post
Next Post
২:২৭ PM

সাইটের জন্য যারা ফ্রি হোস্ট নিতে পারেন না?? তারা এদিকে আসুন With Sshot

Reply
avatar