স্বামীকে ফেলেই চলে গেলেন সেই মার্কিন তরুণী!


ভিসা জটিলতার কারণে স্বামীকে ফেলেই নিজ দেশে চলে গেলেন প্রেমের টানে ঝিনাইদহে আসা সেই মার্কিন তরুণী।

চিরতরে চলে যাননি, স্বামীকে নিজের কাছে নেয়ার ব্যবস্থা করতেই যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমিয়েছেন এলিজাবেথ রিজিনা এসলিক।

তিনি জানিয়েছেন, স্বামীর দেশে থাকার ইচ্ছা থাকলেও আইনি সমস্যায় থাকতে পারেননি। এবার স্বামীকেই নিজের কাছে নিয়ে যাবেন।
ঝিনাইদহের কালীগঞ্জের রাখালগাছি গ্রামের মিঠুন বিশ্বাসকে ভালোবেসে ২০১৭ সালের ২ জানুয়ারি বাংলাদেশে আসেন এলিজাবেথ রিজিনা এসলিক। ওই বছরের ৯ ফেব্রুয়ারি বিয়ে করে এখানেই সংসার করছিলেন দুজন। মাঝে একবার দেশে ফিরে গেলেও বিবাহবার্ষিকী পালন করতে ২০১৮ সালে আবারো বাংলাদেশে আসেন এ মার্কিন তরুণী।
সেই থেকে ঝিনাইদহেই ছিলেন মিঠুন-এলিজাবেথ দম্পতি। তবে ভিসার মেয়াদ না থাকায় এবার নিজ দেশে ফিরে যেতে হয়েছে এলিজাবেথকে। যাওয়ার আগে কথা দিয়েছেন, এবার স্বামীকে নিজের কাছেই নিয়ে যাবেন।

মিঠুন বিশ্বাস জানান, ২০১৫ সালে ফেসবুকে এলিজাবেথ রিজিনা এসলিকের সঙ্গে তার পরিচয়। এরপর মাসখানেকের বন্ধুত্ব, অবশেষে প্রেম।
মিঠুন বিশ্বাস কাজীগঞ্জ উপজেলার রাখালগাছি গ্রামের নির্মল বিশ্বাসের ছেলে। এলিজাবেথ যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটনের ব্যবসায়ী রয় এসলিকের মেয়ে।
ছেলের বউকে ভালোবেসে ফেলেছেন মিঠুনের মা মায়া বিশ্বাসও। তিনি বলেন, এত ভালো পুত্রবধূ পাবো ভাবিনি। দুইবার এসে চার মাস আমাদের সঙ্গে ছিলো। বাড়ির কাজেও সাহায্য করতো। প্রথম দিকে খাবারে একটু সমস্যা হলেও পরে মানিয়ে নিয়েছে। এলিজাবেথ আমাদের সঙ্গে বাংলাতেই কথা বলতো।
তথ্যসূত্রঃ ডেইলি বাংলাদেশ/এআর

Previous
Next Post »