Featured Posts

Xclusive Posts are waiting for you. Check this out

ফ্যাশান ও লাইফষ্টাইল
ফ্যাশান-লাইফষ্টাইল নিয়ে দারুন সব পোষ্ট ।
Make Me Sexy Girl
জানুন কিভাবে আবেদনময়ী নারী হবেন ।
এসইও টিউটোরিয়াল ।
সহজেই শিখুন (SEO) ধারাবাহিক ।
টেকনোলজির অবাক দুনিয়া ।
টেকনোলজি সম্পর্কিত নতুন তথ্য জানুন ।
এসো প্রোগ্রামিং শিখি
HTML,PHP,JAVA,CSS & Other
ভিডিও লাউঞ্জ
নতুন মিউজিক, মুভি ভিডিও সম্ভার ।

Upload and share your images.

Drag and drop anywhere you want and start uploading your images now. 10 MB limit. Direct image links, BBCode and HTML thumbnails.

Female Tattoo Artist For Girls In Bangladesh. Laksmi Ink BD

Female Tattoo Artist For Girls In Bangladesh. Laksmi Ink BD

If you are a girl and looking for get tattoo in your body in bangladesh by a female tattoo artist. It is possible time for you. 
মহিলা আর্টিষ্ট দ্বারা ট্যাটু করান বাংলাদেশেই । এখন বাংলাদেশি নারীদের জন্য যারা ট্যাটু করাতে চান তাদের জন্য রয়েছে প্রশিক্ষন প্রাপ্ত মহিলা ট্যাটু আর্টিস্ট । 



আপনি কি ট্যাটু করাতে চান ? কিন্তু পুরুষ ট্যাটু আর্টিষ্টের কাছে করাতে চাচ্ছেন না ? তবে এখন ট্যাটু করাতে আর সমস্যা নেই । কারন বাংলাদেশেই রয়েছেন মহিলা ট্যাটু আর্টিষ্ট । যার সাহায্যে আপনি খুব সহযেই নিজের শরীরে উল্কি আকাতে পারেন ।
অনেকেই নিজের প্রাইভেট পার্টে ট্যাটু বা পিয়ার্সিং করাতে ইচ্ছুক কিন্তু পুরুষের কাছে কি আর সব ট্যাটু করানো যায় ? তাই লক্ষী ইঙ্ক বিডি আয়োজন করেছে হায়ার ক্লাস প্রশিক্ষন প্রাপ্ত মহিলা ট্যাটু আর্টিষ্ট দিয়ে মেয়েদের শরীরে রাঙানোর দারুন সুজোগ ।




প্রথমেই আপনাকে ভাবতে হবে কেন ট্যাটু করাবেন ? অন্যকে দেখে ট্যাটু নয় নিজেকে ভিন্ন ভাবে উপস্থাপন করতেই ট্যাটু । সাধারনত মেয়েরা নিজের বয়ফ্রেন্ডের নাম, পাখি , প্রজাপতি ও নিজের নামে ট্যাটু করায় । অন্য সব ঠিক থাকলেও বয়ফ্রেন্ড এর নামে করালে বয়ফ্রেন্ড চেঞ্জ হলেও ট্যাটু চেঞ্জ হবেনা । তখন লেজার দ্বারা উঠাতে হবে । যা মোটামুটি ব্যয়বহুল । কিন্তু তার পরেও শরীর সুসজ্জিত করতে ট্যাটু পিয়ার্সিং এর জুড়ি নেই ।


ধর্মীয় দিকঃ

ইসলাম ধর্মে ট্যাটু নিয়ে নিষেধ করা হলেও পিয়ার্সিং ( ফোড়ানো ) নিয়ে বিধি নিষেধ নেই । কিন্তু আগের আর এখনকার ট্যাটুর মধ্যে রয়েছে বিস্তর তফাত । এখনকার ট্যাটু অনেক উন্নত ও স্বাস্থকর যা শরীরের ক্ষতি করেনা বা এইডস বা ছোঁয়াচে রোগের ঝুকি নেই ।  তার পর ও কেউ করাতে চাইলে স্বামী বা বড়দের অনুমতি নিবেন । নিচে মুসলিম বিবাহিত নারীর ট্যাটুর চিত্র দেয়া হল । (প্রথম টি)  [বোঝার সুবিধার্তে ]


See More Image Here

যোগাযোগঃ Lakshmi ink bd  Call: 01768969882 (মহিলা দ্বারা ট্যাটু করান । )

This Is Promoted Content & Its Promoted By Lakshmi ink bd . If You Want To Advertise On Amraito.Com Please Call 01685198807 

এই বিজ্ঞাপনটি Lakshmi ink bd  এর সৌজন্যে । আপনার বা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে কল করুনঃ ০১৬৮৫১৯৮৮০৭ ।  

অন্তর্বাসে সচেতন হোন স্লীভলেস পোষাকে ।

অন্তর্বাসে সচেতন হোন স্লীভলেস পোষাকে ।

হাতা কাটার ফ্যাশনটা জেঁকে বসে গরমেই। কিন্তু খেয়াল রাখতে হবে হাতা কাটা পোষাক পরায় অন্তর্বাস বা ব্রা যেন দেখা না যায় । বেশিরভাগ সময়ই ইচ্ছায় অনিচ্ছায় অনেকেরই অন্তর্বাস জামার ফাক দিয়ে বেরিয়ে থাকে এতে অনেকে বিব্রতকর অবস্থায় পড়ে আবার অনেকে মজা নেয় । তাই পোষাকের ভেতর অন্তর্বাস পরিধানে সাবধান হওয়া উচিৎ ।


আরো দেখুনঃ
Hansika Motwani Bio with Super Sexy Hottest HD Video and Picture 

গরমের ফ্যাশুনেবল কুর্তার সাথে জিন্স লেংগিস ও পালাজ্জো । 

গরমের সময় আরামের জন্য মেয়েরা কামিজে হাতা কাটাকে প্রাধান্য দেয়। কারণ স্বস্তি। ফলে এ ধরনের কামিজের প্রতি তরুণীদের আগ্রহ এখন বাড়ছে। ফ্যাশন হাউসগুলো হাতা কাটা টপস, ফতুয়া, টি-শার্ট ইত্যাদির নতুন ডিজাইন আনলেও এবার বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে কামিজে। গরমের সময় পোশাক হিসেবে বেছে নিতে পারেন স্লিভলেস কামিজ। লং বা শর্ট—যেকোনোটাই হতে পারে। বিশেষ করে এই সময় পার্টি বা অনুষ্ঠানে জমকালো বা ভারী পোশাকে অস্বস্তি হয়। সে ক্ষেত্রে হাতা কাটা কামিজ স্বস্তি দেবে। ’


হাতা কাটা কামিজের কাটছাঁটেই আনা হয়েছে নানা বৈচিত্র্য, নতুনত্ব দেখা যাচ্ছে নকশায়ও। প্রাধান্য পেয়েছে নিরীক্ষামূলক কাজ। যেমনটি বলছিলেন রঙ বাংলাদেশের কর্ণধার ও ডিজাইনার সৌমিক দাস। তিনি বলেন, ‘হাতা কাটা কামিজ তো আগেও ছিল, তবে সেটা ছিল প্লেইন। নকশা প্রাধান্য পেত না। ফ্যাব্রিকসই মূল বিষয় ছিল। আর এখন নকশা ফ্যাব্রিকস ও কাটিং প্যাটার্ন—তিনটি সমান গুরুত্ব পাচ্ছে।


এখনকার কামিজের ঝুলে ওঠা-নামা আছে। কামিজের পেছনে লম্বা রেখে সামনে খানিকটা খাটো ঝুল, দুই কোনায় বেশি ঝুল, ওভাল আকৃতি, ত্রিভুজ আকৃতি, দুই দিকে কলি দিয়ে মাঝখানে সোজা ইত্যাদি প্যাটার্নে তৈরি হচ্ছে। আগে কামিজে পকেটের কোনো বালাই ছিল না। এখন সামনে ভিন্ন রঙের কাপড়ে ছোট্ট এক বা একাধিক পকেট জুড়ে দেওয়া হচ্ছে। ঘেরও কিছুটা কমে এসেছে, তবে কুঁচির ব্যবহার আছে।

 


গরমের কথা মাথায় রেখেই আরামদায়ক ফ্যাব্রিকস ব্যবহার করা হয়েছে। সম্পূর্ণ সুতির পাশাপাশি পাল্লা দিয়ে চলছে লিনেন, হাফ সিল্ক, ধুপিয়ান ও বলাকা সিল্ক কাপড়। নকশায় অ্যাজটেক বা এনিম্যাল প্রিন্টের চেয়ে ফ্লোরাল প্রিন্ট, টাইডাই ও গামছা মোটিফের ব্যবহার বেশি। সুঁই-সুতার কাজও নজর কাড়ছে



কাপড়-ই-বাংলার কর্ণধার মোরসালিন আহমেদ বললেন, ‘আগে কামিজের বুকে কিংবা পিঠেও হরেক রকমের বোতামের ব্যবহার দেখা যেত। এখন বোতাম একেবারে উঠে গেছে তা বলা যাবে না। তবে বেশির ভাগ কামিজে বোতামের বদলে জিপারের ব্যবহার করা হয়েছে।

সেমিলং ও ফ্রক আকৃতির কামিজের ট্রেন্ড চলছে এখন। কলিদার এই কামিজগুলো তৈরি করা হয়েছে নানা ছাঁটে। প্রতিটি কলিতে ভিন্ন রং ও নকশার ব্লকপ্রিন্টের ব্যবহার এনেছে অভিনবত্ব। কম নকশার কামিজে জমকালো বোতাম ও ব্রোচের ব্যবহার করে আকর্ষণীয় করা হচ্ছে। গলায় হালকা কাজও রয়েছে। গলার নিচে কামিজের বডির সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে পরপর দু-তিনটি ভিন্ন রঙের কাপড় ব্যবহার করে বৈচিত্র্য আনা হয়েছে। এক রঙের পাশাপাশি কয়েকটি রঙের সমন্বয়ে বর্ণিল হয়ে উঠেছে কামিজ। গোল গলা, ত্রিভুজাকার গলা, হাইনেক বা পাঞ্জাবি কলারই সাধারণত ব্যবহৃত হয় হাতা কাটা কামিজে। ’ হাইনেক, রাউন্ড ও ভি-গলার কামিজও আছে। হাতা থাকলে যেখানে জোড়া দেওয়া হতো, সেখানে লেস-ফিতার বর্ডার কিংবা ভিন্ন রঙের চিকন পাইপিন জুড়ে দেওয়া হয়েছে।


যাঁদের হাতের গড়ন ভারী, তাঁরা হাতা কাটা কামিজের কাঁধের অংশ একটু চওড়া করে নিন। সঙ্গে পেছনের দিকে ওঠানো গলা থাকলেও ভালো। চাইলে কাঁধ থেকে এক বা দেড় ইঞ্চি পরিমাণ চওড়া ছোট ম্যাগি হাতাও পরতে পারেন। যাঁরা মাঝারি গড়নের, তাঁরা কাঁধ উঁচু ও বন্ধ গলার পোশাকটি হাতা কাটা পরতে পারেন। যাঁদের হাতের গড়ন বেশি চিকন, তাঁরাও চওড়া কাঁধের হাতা কাটা কামিজ পরুন


বাজারে বিভিন্ন রকমের হাতা কাটা কামিজ থাকলেও মোটামুটি তিন ধরনের হাতা কাটাই জনপ্রিয়। ডিজাইনার লিপি খন্দকার জানালেন, ‘নরমাল স্লিভলেস, ম্যাগি হাতা আর হল্টার নেক বেশ চলছে। নরমাল স্লিভলেসের নকশা একেবারেই সাধারণ, শুধু হাতা থাকে না। আর ম্যাগি হাতা হচ্ছে হালকা হাতা, কাঁধ থেকে সামান্য একটু বাড়ানো থাকে মাত্র। তবে ঠিক হাতা বলা যায় না, কাপড়ের বাড়তি অংশ আর কি। হল্টার নেকে একদম হাতার অস্তিত্ব নেই। বুকের ওপর থেকে দুটি ফিতা চলে যায় গলার পেছনে। শুধু ফিতা বেঁধে রাখলেই হয়। এ তিন হাতা কাটার বাইরেও আছে স্প্যাগেটি, ক্যামিসোল, টিউব ও কাট অব টপস। ফ্যাশন ডিজাইনার তানিয়া কাউসারী জানান, ‘হাতা কাটা কামিজের সঙ্গে পালাজ্জো, জিন্স কিংবা লেগিংস—সবটাই মানিয়ে যাবে। আর ওড়না ছড়িয়ে না পরে একপাশে কিংবা গলায় জড়িয়ে পরলে ভালো লাগবে। নির্ভর করবে যে পরবে তার রুচি আর স্বাচ্ছন্দ্যের ওপর। ’

খেয়াল রাখতে হবে

হাতা কাটা কামিজ পরলে হাতের দিকেও খেয়াল রাখতে হবে। অতিরিক্ত মোটা বা চিকন হাতেও হাতা কাটা না পরাই ভালো। হাতা কাটা পোশাক পরা চর্চারও বিষয়। কারণ পরার পর স্বাচ্ছন্দ্যের ব্যাপার থাকে। তা ছাড়া হাতের গড়ন অনুযায়ী কামিজ বেছে নিতে হয়। যাঁদের হাতের গড়ন ভারী, তাঁরা হাতা কাটা কামিজের কাঁধের অংশ একটু চওড়া করে নিন। সঙ্গে পেছনের দিকে ওঠানো গলা থাকলেও ভালো। চাইলে কাঁধ থেকে এক বা দেড় ইঞ্চি পরিমাণ চওড়া ছোট ম্যাগি হাতাও পরতে পারেন। যাঁরা মাঝারি গড়নের, তাঁরা কাঁধ উঁচু ও বন্ধ গলার পোশাকটি হাতা কাটা পরতে পারেন। যাঁদের হাতের গড়ন বেশি চিকন, তাঁরাও চওড়া কাঁধের হাতা কাটা কামিজ পরুন। গলাটা ওঠানো হলেই ভালো দেখাবে। চিকন কাঁধের হাতা কাটা কামিজ কম বয়সী মেয়েদেরই বেশি মানায়। ’ ফেমিনার রূপবিশেষজ্ঞ অঞ্জলি মোস্তফা বলেন, ‘হাতা কাটা পোশাক পরলে হাত যেন লোমহীন, পরিষ্কার ও নরম কনুইয়ের হয়। শরীরের অন্যান্য অংশের তুলনায় হাতের ত্বকের রং গাঢ় হয়।


হাতা কাটা কামিজ পরার আগে হাতের জন্য বাড়তি পরিচর্যার দরকার। সপ্তাহে অন্তত এক দিন পুরো হাতের যত্ন নিন। রোদে হাতা কাটা পরলে সার্নবান হয়। তাই হাতে সানস্ক্রিন মাখতে হবে। রোদ থেকে ফিরে হাতে টক দই বা পাকা টমেটো মেখে শুকিয়ে ধুয়ে ফেলুন; এতে রোদে পোড়া ভাব কেটে যাবে। যাদের হাত ও বাহুতে রোদে পোড়া দাগ রয়েছে, তাঁরা কাগজি লেবু খানিকক্ষণ ঘষে ধুয়ে ফেললে উপকার পাবেন। হাতা কাটা পোশাক পরার আগে অবশ্যই ওয়াক্স করে নিন।


হাতের ত্বক উজ্জ্বল দেখাতে ফেয়ারপলিশও করাতে পারেন। মনে রাখবেন যেকোনো অনুষ্ঠানে হাতা কাটা কামিজ পরলে মুখের সাজের সঙ্গে হাতকেও খানিকটা সাজাতে হবে। এ ছাড়া অন্তর্বাসের ব্যাপারে সচেতন থাকতে হয়। এটি যেন পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন হয় এবং হাতের পাশ দিয়ে বেরিয়ে না যায়।
Hansika Motwani Bio with Super Sexy Hottest HD Video and Picture

Hansika Motwani Bio with Super Sexy Hottest HD Video and Picture

Indian Tamil Telugu Best Sexy glamorous hot actress Hansika Motwani (হংসিকা মোতবানী/ হানসিকা মাতওয়ানি). She is one of the best heroin on bollywood movie. Now cheek biography with new sexy 3xxx hd photo and videos which is collected from facebook, twitte, instragram etc. This is the time to learn and enjoy this fucking girl. Lets do some cheers with hansika motwani latest new hot pics of 2017+18. (updated) 




More hot's:
  1. Hot & sexy model Orchita Sporshia Huge Tits Pictures & latest works.
  2. HOT MODEL TANJIN TISHA BIOPICTURE WITH SEXY PIERCING PHOTO. 
  3. Sana Khan Hot & Crazy Sexy Full HD Picture. (BIography)

Do You know Hansika motwani age , Body sizes or Earnings ?

Hansika Motwani was born in mumbai. Her mother is a doctor and her father is a dentist. Hansika is now 26 years old, born on 1991. Her boobs is so big for the size is 36. As body measurement 36-22-38. Which is juicy for boys . Many boys like her for her good and attractable body size. Hansika motwani's some bed sens are viral on internet Some videos are best sex seen for your night life.
Hansika Motwani earn 80 lacks rupy per movie. Her estimated earnings is 250+ per year.

হানসিকা মাতওয়ানীঃ (bangla)
একজন ভারতীয় চলচ্চিত্র অভিনেত্রী যিনি তামিল ও তেলুগু চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। হানসিকা তামিল চলচ্চিত্রের মাধ্যমে অভিনয় জীবন শুরু করেন এবং জনপ্রিয়তা ও খ্যাতি অর্জন করেন । দেসামুদুরু চলচ্চিত্রে তাঁর অসাধারণ অভিনয়ের জন্যে তিনি ফিল্ম ফেয়ার সেরা অভিনেত্রী (নবাগত) - সাউথ অর্জন করেন। পরবর্তীতে তিনি কান্ত্রি, মাসকা সহ আরও বেশ কয়েকটি বড় বাজেটের চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। তিনি মাপ্পিল্লাই চলচ্চিত্রের মাধ্যমে তেলুগু চলচ্চিত্রে অভিনয় শুরু করেন। পরবর্তীতে তিনি ভেলায়ুধাম, অরু কাল অরু কান্নাডি, থিয়া ভেলাই সেইয়ানুম কুমারু ও মান কারাতে সহ বেশ কিছু চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন।

Acting Life of Hansika: 

Many people doesn't know Hansika Motwani was acted on famous indian serial "Shakalaka Boom Bomm" which was her debut on Tv. She made her debut on movie at the age of 16 opposite tamil superstar "Allu Arjun" of the movie "Desamuduru" which was Awarded filmfare award. And some of hot movie was "Oh my friend" "puli" "Romeo Juliet"  etc.
She started her career in Tamil cinema with Mappillai (2011) and then appeared in several commercially successful Tamil films including Engeyum Kadhal (2011), Velayudham (2011), Oru Kal Oru Kannadi (2012), Theeya Velai Seiyyanum Kumaru (2013) and Maan Karate (2014).

Social Work:

Hansika motwani was is involved in many social activities. She provided supporting to educate children and also for women to protect breast cancer. Hansika Motwani also work with some Ngo. 

When She is Hot & Sexy?

Many people think Hansika Motwani is hot when she is in Jeans for her big tight ass, Kamij, Churidar and sleeveless blouse with sarees. But what or when you find her sexy hotti that's your choice. Write a comment below to share your sexy Hansika Motwani with us.


Hansika motwani [Amraito (3)


Hansika motwani [Amraito (4)


Hansika motwani [Amraito (5)


Hansika motwani [Amraito (8)


Hansika motwani [Amraito (9)


Hansika motwani [Amraito (10)


Hansika motwani [Amraito (12)


Hansika motwani [Amraito (13)


Hansika motwani [Amraito (15)


Hansika motwani [Amraito (16)


Hansika motwani [Amraito (17)


Hansika motwani [Amraito (18)


Hansika motwani [Amraito (19)


Hansika motwani [Amraito (20)


Hansika motwani [Amraito (21)


Hansika motwani [Amraito (22)


Hansika motwani [Amraito (23)


Hansika motwani [Amraito (24)


Hansika motwani [Amraito (25)


Hansika motwani [Amraito (26)


Hansika motwani [Amraito (27)


Hansika motwani [Amraito (28)


Hansika motwani [Amraito (29)



Hansika motwani [Amraito (30)

 Sexy Videos Of Hansika Motwani:



People Search Hansika with tags: hansika images cute, hansika images koi mil gaya, pics of hansika motwani on facebook, hansika motwani movie, hansika motwani biography, hansika motwani body sizes, hansika motwani hot pics in hd, hansika motwani in jeans, hansika motwani jeans pics, hansika motwani latest movie list